রাম মন্দিরের পক্ষে আদালতে লড়েছিলেন ‘পরাসরন”, ওনাকে রাম মন্দির ট্রাস্টের সদস্য বানাল মোদী সরকার

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi) বুধবার অযোধ্যায় রাম মন্দির (Ram Mandir) নির্মাণের জন্য ট্রাস্ট বানানোর ঘোষণা করে দিয়েছে। এরপর কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ (Amit Shah) বলেন, এই ট্রাস্টে ১৫ জন সদস্য থাকবেন, যার মধ্যে একজন দলিত সম্প্রদায়ের মানুষও থাকবেন।

সমাজে সৌহার্দ্য বজায় রাখার জন্যই অমিত শাহ দলিত ব্যাক্তিকে ট্রাস্টে রাখার সিদ্ধান্ত নেন। এই ঘোষণা চার ঘণ্টা পর ট্রাস্টের ১৫ জন সদস্যের নাম সামনে এসেছে।

অযোধ্যা মামলায় হিন্দু পক্ষের প্রধান আইনজীবী ৯২ বছর বয়সী কে. পরাসরন-কে (K. Parasaran) রাম মন্দির ট্রাস্টের সদস্য বানানো হচ্ছে। পরাসরন চাহ্রাও এই ট্রাস্টে এক শঙ্করাচার্য সমেত পাঁচ ধর্মগুরু সদস্য হবেন। এর সাথে সাথে অযোধ্যার প্রাক্তন রাজ পরিবারের রাজা বিমলেন্দ প্রতাপ মিশ্রা, অযোধ্যার হোমিওপ্যাথি ডাক্তার অনিল মিশ্রা আর কালেক্টর-কে ট্রাস্টের সদস্য বানানো হয়েছে।

প্রথমে শোনা যাচ্ছিল যে, চার জন শঙ্করাচার্যকে এই ট্রাস্টে যুক্ত করা হবে, কিন্তু সরকার ট্রাস্টে শুধুমাত্র প্রয়াগরাজ এর জ্যতিশ পীঠাধিশ্বর স্বামী বাসুদেবানন্দ সরস্বতী জি মহারাজকে যুক্ত করা হয়েছে। এছাড়াও ট্রাস্টে নির্মাহি আখারাকেও জায়গা দেওয়া হয়েছে, কিন্তু আখারার মহন্ত দিনেন্দ্র দাসকে ট্রাস্টের মিটিং আর ভোটিং এর অধিকার দেওয়া হয়নি।

Create your website with WordPress.com
Get started
%d bloggers like this: