Design a site like this with WordPress.com
Get started

চীনে আমাদের নাগরিকরা মারা গেলেও আমরা ভারতের সাহায্য নিয়ে তাদের ফিরিয়ে আনবো না: পাকিস্তান

করোনা ভাইরাসের দরুন ভারত সরকার চিনে থাকা নাগরিকদের ফিরিয়ে আনার কাজে নেমেছে। ভারত (India) এখনও অবধি ৩,৪ ধাপে স্পেশাল বিমানের মাধ্যমে  ভারতীয়দের চিনে ফিরিয়ে এনেছে। অন্যদিকে পাকিস্তান সরকার তাদের নাগরিকদের মরার জন্য ছেড়ে দিয়েছে। পাক সরকার বলেছে মরা বাঁচা কারোর হাতে নেই। একটা ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ার ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে ভারতের দূতাবাস থেকে বাস পাঠানো হয়েছে ভারতীয় ছাত্রদের জন্য যাতে তাদের এয়ারপোর্ট অবাধি নিয়ে যাওয়া যায়। কিন্তু সেখানেই পাকিস্তান ছাত্ররা সেটা দাঁড়িয়ে করুন দৃষ্টিতে দেখছে। পাকিস্তান তার আচরণের জন্য ভারতের শত্রু হলেও ভারতীয়রা এই করুন ভিডিও দেখে দুঃখ প্রকাশ করেছেন ও পাক সরকারকে ধিক্কার জানিয়েছেন।

এখন ভারত সরকারও জানিয়েছে, যদি পাকিস্তান অনুরোধ করে তাহলে মানবতার খাতিরে পাকিস্তানি ছাত্রদের বের করে নিয়ে আসা হবে। তবে পাকিস্তান যা বলেছে তা অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক। পাকিস্তানের তরফে ইঙ্গিত দিয়ে বলা হয়েছে তারা তাদের নাগরিকদের হারিয়ে ফেলবে তাও ভালো তবুও ভারতের সাহায্য নেবে না। অর্থাৎ যদি পাকিস্তানের নাগরিকরা চীনে মারা যায় তা সত্ত্বেও ভারতের সাহায্য নিয়ে তাদের ফিরিয়ে আনা হবে না।

পাকিস্তানের রাষ্ট্রপতি আরিফ আলভি, ইসলাম ও আল্লাহর দোহাই দিয়ে পাক সরকারের কাজের সমর্থন করেছে। পাকিস্তানের সরকার কোনোভাবেই চীনে আটকে থাকা নাগরিক তথা ছাত্রদের ফিরিয়ে আনতে রাজি নয়। আর এখন পাকিস্তানের রাষ্ট্রপতি পাক সরকারের সমর্থনে নেমে টুইট করতেও শুরু করেছেন। উনি বলেছেন এই বিপদের সময় চীন থেকে বেরিয়ে আসা উচিত নয়।

অন্যদিকে চীনে থাকা পাকিস্তানি ছাত্ররা বার বার করে তাদের উদ্ধারের জন্য ইমরান সরকারের থেকে অনুরোধ করেছেন। পাকিস্তানি ছাত্রদের আত্মীয় পরিজনরাও ইমরান সরকারকে চাপ দিয়েছে তাদের ছেলে মেয়েকে ফেরত আনার প্রসঙ্গে। কিন্তু পাকিস্তান নিজের নাগরিকদের আপাতত পর করে দিতেই রাজি। এমন অবস্থায় ভারতের দেওয়া অফারকে প্রত্যাখ্যান করেও যে পাক সরকার ভুল করেছে তা নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই।

Advertisement
%d bloggers like this: